বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ০৫:১৭:৩৮ এএম

প্রাণোচ্ছল আকুতি

সানজিদা আকতার (সানজু) | সাহিত্য | শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | ০২:৪৬:৫৭ পিএম

এই তো আজ, সকালবেলা ঘুম থেকে জেগেই-
মনটা আঁকুপাঁকু করে উঠলো তোমার চোখের আহ্বানে,
বিছানায় তাকিয়ে দেখি তুমি নেই, চারদিকেই খুঁজি
চেয়ে দেখি-শুধু পরে আছে ছন্নছাড়া একটা নরম বালিশ!
চোখটা ঝাপসা হয়ে ওঠে, মনে হয় দু’ ফোঁটা নোনাজল
গড়িয়েই পড়ছে আমার মনের অজান্তে!
বুক থেকে বেড়িয়ে আসে একটা বিষাক্ত দীর্ঘশ্বাস,
এই তো, মাত্র সেদিন- আমরা জলকেলি খেলেছিলাম,
চড়ুইভাতি খেলেছিলাম ডালিম গাছের তলে, কত খুনসুটি-
ভাবিওনি সেটা আজ কেবলই শরতের স্মৃতি হয়ে ফ্রেমে বাঁধা পড়বে!
আচ্ছা, আজ কি এতটুকুটু স্পর্শও দিতে পারো না ?
“অনাদরটা না হয় আদর ভেবেই চালিয়ে নিবো”,
কষ্টের মৌনতা ভেঙ্গে গড়ে নেবো সুখের সাম্রাজ্য।
আজকাল অগ্নিদহনে পুড়তে পুড়তে ভাবছি-
তোমার ভালোবাসায় বিদেয় করে দিবো শঠতার আচ্ছাদন!
মনে হছে- আজ আমি বৃত্তবন্দী মায়াজালে আটকে গেছি,
ভালোবাসার এতো সময় পরে এসেও, আজ কেন জানি মনে হয়
ধীরে ধীরে ভোঁতা হয়ে যাচ্ছে আমার গোপন অভিলাষ,
মুষড়ে পড়ছে হৃষ্টপুষ্ট বিশ্বাসের এক একটা তকতকে কার্নিশ!
ফিরে এসো প্রিয়তম, ফিরে এসো তোমার আপন ভালোবাসালয়ে।
অনেক তো অন্তরালে থেকেছো, অন্তর্বাস করেছো অন্ধকারের সাথে-
পেয়েছো কি এতটুকু আলোর দেখা? পাছে হারিয়েছো অস্তিত্তের স্বপ্নহাস!
তুমি শুনতে কি পাও আমার প্রাণোচ্ছল আকুতি?
তাহলে ছুটে আসো ভালোবাসার তাগিদে।
এসো, দেখো, অনুভব করো, তোমার সাজানো বাগান সাজানোই আছে
সেখানে কখনোই জন্মাতে দেইনি একটা অলিক দূর্বা ঘাসের শিকড় মাত্র!

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন