শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ০৪:০৩:৩১ পিএম

মওদুদের বাড়ি কেরে নেওয়ার অধিকার সরকারের নেই (ভিডিওসহ)

ডেটঃ ২৩-১১-২০১৬

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার ক্ষমতা সরকারের নেই বলে সাফ জানিয়েছেন বিএনপির এ নেতা। তিনি বলেন, ‘রাজধানীর গুলশানে মওদুদ যে বাড়িটিতে থাকেন সেই বাড়িটি সরকারের মালিকানাধীন নয় তাই সরকারে কোনো অধিকার নেই বাড়ি ছাড়তে বলার বা উচ্ছেদ করার।’

মওদুদ বলেন, ‘একনেকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আমাকে কেন আমার বাড়ি থেকে ওঠানো বা উচ্ছেদ করা হচ্ছে না। আমার বাড়ির মামলা এবং বাড়ি ছাড়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ভুল তথ্য দেয়া হয়েছে। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) হয়তো জানেন না সুপ্রিমকোর্টের রায়ে এটা প্রমাণিত হয়েছে যে এটি সরকারের বাড়ি নয়। যদি সরকারের বাড়ি না হয়ে থাকে তবে সরকার আমাকে কিভবে উচ্ছেদ করবে।’

তিনি বলেন, ‘সুপ্রিমকোর্টের এ রায়ের মধ্য দিয়ে বলা হয়েছে অস্ট্রেলিয়া সিটিজেন ইঙ্গেস ফ্লেট। তিনি মারা গেছেন অনেক আগেই। কিন্তু তার পুত্র সন্তান সৈয়দ এফ সোলাইমান। তিনি নিজে এসেই তার বাড়ির কাগজপত্র আদালতে দেখিয়েছেন। এখন তিনি সিদ্ধান্ত নিবেন আমাকে বাড়ি থেকে সরাবেন কি না। তবে তারা উচ্ছেদ করতে চাইলে আদালতের মাধ্যমেই সরাতে হবে।’

এর আগে অভিযোগ ওঠে, গুলশানের যে বাড়িটিতে মওদুদ আহমদ ও তার পরিবার থাকছেন, তার প্রকৃত মালিক ছিলেন পাকিস্তানি নাগরিক মো. এহসান। ১৯৬০ সালে তৎকালীন ডিআইটির কাছ থেকে এই বাড়ির মালিকানা এহসান ‘লাভ করেন’। ১৯৬৫ সালে বাড়ির মালিকানার কাগজপত্রে এহসানের পাশাপাশি তার স্ত্রী অস্ট্রেলীয় নাগরিক ইনজে মারিয়া প্লাজের নামও অন্তর্ভুক্ত হয়।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে এহসান স্ত্রীসহ ঢাকা ত্যাগ করেন। তারা আর ফিরে না আসায় ১৯৭২ সালে এটি পরিত্যক্ত সম্পত্তির তালিকাভুক্ত হয়। পরের বছর থেকে মওদুদ পরিবার নিয়ে ওই বাড়িতে বসবাস শুরু করেন। এরপর ১৯৭৩ সালের দুই অগাস্ট মওদুদ তার ইংল্যান্ডপ্রবাসী ভাই মনজুরের নামে একটি ভুয়া আমমোক্তারনামা তৈরি করে বাড়িটি সরকারের কাছ থেকে বরাদ্দ নেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়। মওদুদ আহমদ ওই অভিযোগ আমলে নেয়ার আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ফৌজদারি রিভিশন আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে গতবছর ২৩ জুন হাইকোর্ট তা খারিজ করে দেয়। হাইকোর্টের ওই রায়ের বিরুদ্ধে মওদুদ আহমদ আপিলের আবেদন করলে আপিল বিভাগ তা মঞ্জুর করে। এর ধারাবাহিকতায় আপিল বিভাগে আপিলের শুনানি হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

শেয়ার